1. admin@cn24bd.com : admin :
  2. admin@admin.com : cn 24 bd : cn 24 bd
  3. editorAsad@gmail.com : Asaduzzaman Asad : Asaduzzaman Asad
  4. saju@gmail.com : Saju Azams : Saju Azams
  5. jaffreyalam@gmail.com : Jaffrey Alam : Jaffrey Alam
১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| বর্ষাকাল| বুধবার| রাত ৮:৫০|
শিরোনাম :
জমির লোভে মৃত ভাই সুবন সাজতে গিয়ে ধরা খেলেন সৎ ভাই নাহিদ, প্রতারণার দায় স্বীকার সিংগাইরে গ্রাহকের কাছে ব্যাংক ম্যানেজারের ঘুষ দাবীর অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে গলা কাটা মহিলার লাশ উদ্ধার সিংগাইরে জন্মান্ধ তরুণীকে ধর্ষণ, পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা প্রকাশিত সংবাদ এর প্রতিবাদ কে এই সালমান বিন নান্নু মিয়া মায়ানমারের সাথে গার্মেন্টসের ব্যবসার নামে অবৈধ মাদকের ব্যবসায় রাতারাতি শত শত কোটি টাকা বনে যায় আমের ক্যারেট থেকে ২৮ বোতল ফেনসিডিলের নতুন নাম ফেনসিগ্রীপ উদ্ধার ! বাড়িতে বাবার মৃতদেহ রেখে এইচএসসি পরিক্ষা দিলেন লক্ষ্মীপুরের এক মেয়ে সাহরাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের এর ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে নাম ঠিকানা কাগজপত্র বিহীন ভাবে দিনের পর দিন চলছে একটি মিষ্টি কারখানা 

কে এই সালমান বিন নান্নু মিয়া মায়ানমারের সাথে গার্মেন্টসের ব্যবসার নামে অবৈধ মাদকের ব্যবসায় রাতারাতি শত শত কোটি টাকা বনে যায়

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৬ জুলাই, ২০২৪
  • ৬৪ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:- মোহাম্মদ সালমান বিন নানু মিয়া । যার আসল নাম মোহাম্মদ নান্নু মৃধা (৩৫) অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত লেখাপড়া করে তার বাবার নাম ইয়াসিন মৃধা, মায়ের নাম মিনারা বেগম। বর্তমান ঠিকানা :-নারায়ণগঞ্জ মাহমুদপুর রুপায়ন গার্মেন্টস সংলগ্ন একটি বাড়ির তৃতীয় তলায় ১ ( এক) কোটি ২০ লক্ষ টাকায় ফ্ল্যাট ক্রায় করে বসবাস করে । তার স্থায়ী ঠিকানাঃ- গ্রাম সিংহরাকাঠী,বাউফল পটুয়াখালী। অর্থনৈতিক অভাবের কারণে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত লেখাপড়া করে ঢাকায় চলে এসে বাবার সাথে দিনমজুরের কাজ শুরু করে। বাবার পরিচিত এক লোকের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জে গার্মেন্টসে চাকুরী নেয় সেই সুবাদ মায়ানমারের এক লোকের সাথে পরিচিত হয় নান্নু মৃধা । পরিচয়ের ভিত্তিতে এক পর্যায়ে ওই লোকের সাথে মায়ানমার যায় নান্নু সৃধা সেখান থেকে এসেই কয়েকদিন পরে নারায়ণগঞ্জ সাইনবোর্ড এলাকায় নান্নু সাজ নামের গার্মেন্টস তৈরি করে । হঠাৎ করে কারখানা দেওয়ায় হতভাগ হয়ে যায় এলাকাবাসী । দীর্ঘ কয়েক মাস অনুসন্ধানের পরে মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন নামের এক গণমাধ্যম কর্মী ২০-জুন ২০২৪ ইংরেজি তারিখে বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশন দুদুকে নান্নু মিয়ার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের সংবাদ পরিবেশন করার জন্য এই প্রতিনিধির সম্পাদকের কাছে অভিযোগ কারি অভিযোগের কপি দিলে অভিযোগের সত্যতা যাচাই বাছাই করার জন্য সাংবাদিক হাসমত মিয়া স্টাফ রিপোর্টারকে দায়িত্ব প্রদান করে। এরই ভিত্তিতে সাংবাদিক হাসমত মিয়া অনুসন্ধানে বের হয়। বিভিন্ন লোকের মাধ্যমে জানতে পারে নান্নু মৃধা অভাবের তাড়নায় ঢাকায় এসে গার্মেন্টসে চাকরি নেয়। মুন্না সাজ ডিজাইন গার্মেন্ট দেয়ার পরে পদবী পরিবর্তন করে লেখা হয় নান্নু মিয়া। এরপরে আর নান্নু মিয়াকে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তিনি প্রায়ই গার্মেন্টসের মাল নিয়ে মায়ানমার যাওয়ার কথা বলে সেখান থেকে অবৈধ মাদক নিয়ে এসে নারায়ণগঞ্জ সাইনবোর্ড মাহমুদপুর স্টেশন এর কাছে ১(এক) কোটি ২০ লক্ষ টাকায় একটি ফ্লোর ক্রায় করে মুন্না সাজ ২ নামের আর ও একটি ফ্যাক্টরি তৈরি করে এ তথ্য দেয় নান্নু মিয়ার এক পুরানো স্টাফ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক। এই গার্মেন্টস এর নামমাত্র কয়েকটি মেশিন ও কর্মচারী রয়েছে তার একাধিক কর্মচারী জানায় এরপরেই নাম ও পদবী পরিবর্তন করে মোহাম্মদ সালমান বিন নান্নু মিয়া নাম রাখে । সালমান বিন নান্নু মিয়ার বিশ্বাস্হ এক কর্মচারী এ প্রতিবেদক কে জানায় গার্মেন্টসের ব্যবসার আড়ালে তার মূল ব্যবসা হল মায়ানমার থেকে মাদক এনে বাংলাদেশে সাপ্লাই দেওয়া। এই মাদকের ব্যবসা দিয়েই নান্নু শত শত কোটি টাকার মালিক বানে যায়। তার এই অবৈধ অর্থের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা স্টেডিয়ামের পাশে ৭০ শতাংশ জমি ক্রয় করে বাউন্ডারী দিয়ে রাখে। এ প্রতিবেদক আরো জানতে পারে ঝালকুড়ি রুলিং মিলের পাশে ১০( দশ) কাটা জমি ক্রায় করে ৩ (তিন) তলা ভবন করে ভাড়া দেয়। অনুসন্ধানকালে এ প্রতিবেদক আরো জানতে পারে নারায়ণগঞ্জ মাহমুদপুর ড্রাগ ফ্যাশনের পিছনে ১০ ( দশ) কাঠার একটি প্লট ক্রায় করে। নারায়ণগঞ্জ রূপায়ণ গেট সংলগ্ন একটি বাড়ির তৃতীয় তলায় ১ কোটি ২০ লক্ষ টাকায় একটি ফ্ল্যাট ক্রায় করে সে বসবাস করে মোহাম্মদ সালমান বিন নান্নু মিয়া ওরফে (নান্নু মৃধা)। নান্নু মৃধার মামা শাহীন মৃধা ( ৪৫) অষ্টম শ্রেণী পাস ওই ফ্যাক্টরির জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত রয়েছে । শাহিনের বাবা মহম্মদ রাজ্জাক কেরানী ১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধার সময় রাজাকার ছিল বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শাহিনের বাড়ির এক চাচা জানায় এ প্রতিবেদক কে তিনি আরো জানায় শাহিন বর্তমানে টাকার বিনিময়ে ২ নং কালীশ্বরী ইউনিয়ন যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হয়েছে অথচ তার বাবা একজন একজন রাজাকার। এই শাহিনের নামে ভাগ্নে নান্নু মিয়া নারায়ণগঞ্জ মাহমুদপুর তাজ উদ্দিন ব্রীজের পাশে মসজিদ সংলগ্ন ষষ্ঠ তলার একটি বাড়ি করে দেয় যেখানে শাহীন মৃধা বসবাস করে। এ প্রতিবেদক তার অনুসন্ধানে আরো জানতে পারে বরিশাল রাম পট্টি রহমতপুর এলাকায় সালমান শাহ নামে একটি দরবার শরীফ রয়েছে বর্তমানে নান্নু মৃধা ওই দরবার শরীফের গদিনশাহ বলে নিজেকে দাবি করে। বরিশাল রহমতপুর রামপট্রি এলাকায় এই নান্নু মিয়া ৫০ শতাংশের একটি প্লট ক্রয় করে ৫ (পাঁচ)তলা ভবন নির্মাণ করে এবং বাকি জায়গায় ওয়াল টিন সেট করে মার্কেট তৈরি করে। এ প্রতিবেদক তার অনুসন্ধানে জানতে পারে বরিশাল এয়ারপোর্ট রোডের পাশে ১০ ( দশ)শতাংশ জমি ক্রয় করে বাউন্ডারি দিয়ে রাখে।নান্নু মিয়া তার জন্মস্থান বাউফল উপজেল কালিসুরি ইউনিয়নের আড়াই নাও মৃধা বাড়ি নানা বাড়ি অভাবের তাড়নায় তার বাবা ইয়াসিন মৃধা সিংহেরা কাঠি শশুর বাড়ি অবস্থান করে। সুচতুর নান্নু মৃধা অবৈধ টাকার সাথে সাথে নাম পদবী ঠিকানা সবকিছু পরিবর্তন করে ফেলে। তার অবৈধ অর্থের দ্বারা নানা বাড়িতে পাঁচতলা ফাউন্ডেশন দিয়ে একতলা ভবন নির্মাণ করে সেখানে তার বাবা-মা বসবাস করে বলে গ্রামের একাধিক সূত্র জানায়। এ প্রতিবেদক তার অনুসন্ধানে আরো জানতে পারে গ্রামে তপন হালদার পিতা মৃতঃ যোগেন্দ্র হালদার এর নিকট থেকে একই দিনে ৪৫০ শতাংশ জমি ক্রয় করে। এছাড়া বাহেরচর বন্দরে বাবু কল্যাণ ব্রত রায়ের নিকট থেকে ১০(দশ) শতাংশ জমি ক্রয় করে ১তালা ভবন করে মার্কেট তৈরি করে। তার অবৈধ অর্থে একই গ্রামে মোহাম্মদ নজরুল মৃধা পিতা মৃতঃ আদম আলী মৃধা এর নিকট থেকে একই দিনে একটি ব্রীক ফিল্ডের জমি প্রায় ৫০০( পাচশত) শতাংশ জমি ক্রায় করে। এছাড়া নান্নু মিয়া তার নামে বেনাম স্ত্রী সন্তানের নামে বিভিন্ন ব্যাংকে লক্ষ লক্ষ টাকার সঞ্চয়পত্র রয়েছে বলে একাধিক সূত্র জানায়। সামান্য কয়েক বছরের গার্মেন্টস এর ব্যবসায় শত শত কোটি টাকার সম্পদ অর্জন করা সম্ভব নয় বলে মনে করে বিভিন্ন সূত্র। এ সকল বিষয় এ প্রতিবেদক একাধিকবার মোহাম্মদ সালমান বিন নান্নু মিয়ার সাথে তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করলেও অনুসন্ধানের স্বার্থে তিনি সাক্ষাৎকার দিতে রাজি হয় নি। উল্টো এ প্রতিবেদক কে হুমকির শুরে বলে আমি আরো ২০০ শতাংশ জমি কিনছি আপনার কি? যদি কিছু করতে পারেন আপনি করেন । এছাড়াও এ প্রতিবেদককে একজন অজ্ঞাত নামা পুলিশের এসপি ও একটি ব্যাংকের ম্যানেজারের নাম করে হুমকি প্রদান করে যার ফলে এ প্রতিবেদক থানায় গিয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করে। বিষয়টি দুদকসহ বাংলাদেশ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য বিভিন্ন সূত্রে অনুরোধ জানাচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© কপিরাইট ২০১৩-২০২৪ সিএন ২৪ নিউজ কারিগরি সহায়তায়❤️ ITDOMAINHOST.COM